স্কুল ছাত্রীধর্ষণের ঘটনায় শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮

 প্রকাশ: ০৯ মে ২০২৪, ০৭:৪৩ অপরাহ্ন   |   আইন-আদালত-অপরাধ

স্কুল ছাত্রীধর্ষণের ঘটনায় শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮

ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ- ঝালকাঠিতে চাঞ্চল্যকর স্কুলের শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী ধর্ষণ মামলার আসামী গৌতম মজুমদার (৩৭)’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮। বুধবার সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে

পিরোজপুর সদর থানার লখকাঠি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে আটক করা হয়। সে সদর উপজেলার গুয়াটন হেমায়েত উদ্দিন বিজ্ঞান শিক্ষায়তনের সহকারী শিক্ষক ও পিরোজপুরের লখকাঠি এলাকার গৌরাঙ্গ মজুমদারের পুত্র।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গৌতম মজুমদার তার ছাত্রী (১৬) কে প্রাইভেট পড়ানোর ফাঁকে আপত্তিকর ছবি তুলে ব্ল্যাকমেল করে কৌশলে নিজ ভাড়া বাসায় ডেকে নেয়। গত ৩ মে সকাল ৭টায় ফাঁকা বাসার দরজা বন্ধ করে ভিকটিমকে আটকে রেখে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ভিকটিমের বাড়ি ফিরতে দেরি হওয়ায় ভিকটিমের পিতাসহ অন্যান্য আত্মীয়রা আসামীর ভাড়া বাসায় গিয়ে সকাল ১১টায় ভিকটিমকে উদ্ধার করে। আসামী কৌশলে ধর্ষণের ভিডিও ও আপত্তিকর ছবি তুলে নিজের ব্যক্তিগত মোবাইল ও ল্যাপটপে সংরক্ষণ করে রাখে। উক্ত ঘটনার পর আসামী ভিকটিমের কপালে সিঁদুর পড়িয়ে বিয়ে করেছে বলে লোক মুখে প্রচার করে। ভিকটিম ও তার পরিবার আইনের আশ্রয় নিতে চাইলে, তার ধারণকৃত ভিডিও এবং ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়াসহ প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করে। উক্ত ধর্ষনের বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে এবং জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি করে। এ ঘটনায় ভিকটিমের পিতা মোঃ রিয়াজ উদ্দিন (৩৯) বাদী হয়ে ঝালকাঠি  জেলার সদর থানায় ‘নারী ও  শিশু নির্যাতন দমন আইন-২০০০ (সংশোধনী ২০০৩) এর ৯(১) ধারায় একটি ধর্ষণ মামলা (মামলা নং—০৭, তারিখ—০৬/০৫/২৪ইং।) দায়ের করেন।  গ্রেফতারকৃত আসামীকে ঝালকাঠি  জেলার সদর থানায় পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে র‌্যাব।

আইন-আদালত-অপরাধ এর আরও খবর: