বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক ফোরামের সম্পাদনায় 'মুজিব তর্জনী'র মোড়ক উন্মোচন

 প্রকাশ: ২৩ জানুয়ারী ২০২৩, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন   |   শিক্ষা

বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক ফোরামের সম্পাদনায় 'মুজিব তর্জনী'র মোড়ক উন্মোচন


মেজবা রহমান (বশেমুরবিপ্রবি) :



গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সাংবাদিক ফোরামের পক্ষ থেকে প্রথম ম্যাগাজিন ‘মুজিব তর্জনী’ র মোড়ক উন্মোচিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু নামাঙ্কিত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এটিই তার নামের প্রথম ম্যাগাজিন।


রবিবার(২২জানুয়ারি) বিকেল ৩ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০১ নম্বর কক্ষে(সেমিনার কক্ষে) 'মুজিব তর্জনী' মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


দপ্তর সম্পাদক আকিক তানজিল জিহান এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য ড. একিউএম মাহবুব। বিশেষ অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর ড. মো. কামরুজ্জামান ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক এ জিহাদুর রহমান জিহাদ। অনুষ্ঠানে বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি শেখ আব্দুর রহিমের সভাপতিত্বে বিভিন্ন অনুষদের ডীন, চেয়ারম্যান,  শিক্ষক, কর্মকর্তা, সাংবাদিক ফোরামের সদস্য, ছাত্রলীগের কর্মীসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য ড. একিউএম মাহবুব বলেন, মুজিব তর্জনী নামের ম্যাগাজিন প্রকাশ সত্যিই সাংবাদিক ফোরামের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। আমি তাদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই। 'মুজিব তর্জনী' ম্যাগাজিন সম্পর্কে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর তর্জনীর ক্ষমতা এতটাই শক্তিশালী যেটি সবার মধ্যে থাকেনা। তার এ তর্জনীর অবদানই আজকের বাংলাদেশ। আমি তাদের সর্বাঙ্গীণ মঙ্গল কামনা করি। এসময় তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাল্যকাল ও রাজনৈতিক জীবন নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনার এক পর্যায়ে তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতায় মুজিবুর রহমানের ভূমিকা নিয়ে আলোকপাত করেন।


সভাপতির বক্তব্যে শেখ মুজিবুর আব্দুর রহিম বলেন, আমাদের সংগঠন থেকে এটাই প্রথম প্রকাশনা। আমাদের সহায়তাকারী প্রত্যেকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। আমরা জাতির পিতার  নামে এই ম্যাগাজিন প্রকাশনার ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখব।


অনুষ্ঠানে সাংবাদিক ফোরামের সাধারন সম্পাদক মেজবা রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সংগঠনের মধ্য থেকে জাতির পিতার নামে এই প্রথম এমন একটি প্রকাশনা বের করতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত৷ তিনি বলেন, 'মুজিব তর্জনী' র শক্তি আমাদের সকলের মধ্যে জেগে উঠবে এই প্রত্যাশা করি। এবং বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক ফোরাম বরাবরের মত বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থে  কাজ করে যাবে।


শিক্ষা এর আরও খবর: