কিংসনিউজ২৪.কম-এ সংবাদ প্রকাশের পর মাথা গোঁজার ঠাঁই পেলো সালথার ভূমিহীন দম্পতি নিরাঞ্জন-মিরা

 প্রকাশ: ১৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:৫০ অপরাহ্ন   |   ভিন্ন খবর

কিংসনিউজ২৪.কম-এ  সংবাদ প্রকাশের পর  মাথা গোঁজার ঠাঁই পেলো সালথার ভূমিহীন দম্পতি নিরাঞ্জন-মিরা

জাকির হোসেন (সালথা, ফরিদপুর)

মাথা গোঁজার ঠাঁই পেয়েছেন সালথার ভূমিহীন নিঃসন্তান দম্পতি নিরাঞ্জন মালো ও মিরা রানী, বসবাস শুরু করেছে আশ্রয়ন প্রকল্পের নতুন ঘরে। তারা খুশিতে আত্মহারা, যেন আকাশের চাঁদ হাতে পেয়েছেন। দুদিন আগেও তারা ১২’শ টাকা মাসিক ভাড়াটিয়া ঘরে বসবাস করতেন। এখন তারা জমি ও ঘরের মালিক। উল্লেখ্য, গত ৬ জানুয়ারি, ২০২৩ তারিখে কিংস নিউজ২৪.কমসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় “সালথার ভূমিহীন নিঃসন্তান দম্পত্তির মাথা গোঁজার ঠাই নাই” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর উপজেলা প্রশাসন বিষয়টি সরেজমিনে যাচাই বাছাই পূর্বক গত মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিকালে জমিসহ আশ্রয়ন প্রকল্পের একটি ঘর প্রদান করেন।

গত মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিকালে নিরাঞ্জন ও মিরার হাতে উপজেলার মাঝারদিয়া ইউনিয়নের কুমারপট্টি আশ্রয়ন প্রকল্পের ১৯ নং ঘরের চাবি তুলে দেন সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আক্তার হোসেন শাহিন। এসময়  উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ সালাহউদ্দিন আইয়ূবী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জীবাংশু দাস সহ স্থানীয় অনেকে। এর আগে তাদের নগদ অর্থ ও কম্বল প্রদান করেছেন উপজেলা প্রশাসন।

সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আক্তার হোসেন শাহিন বলেন, বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত একটি উদ্যোগকে আরো কিভাবে সাফল্যমন্ডিত করা যায়, এজন্য সাংবাদিকরা ছিন্নমূল ও অসহায় ব্যক্তিদের কথা তুলে ধরে আসছেন। আমরা কয়েকদিন  আগে সংবাদপত্রের মাধ্যমে ভূমিহীন মিরা-নিরাঞ্জন দম্পতির বিষয়ে জানতে পেরেছি। সংবাদ প্রকাশের পর নিরাঞ্জন ও মিরা দম্পতিকে খুঁজে এনে আজকে তাদেরকে পুনর্বাসিত করলাম।

তিনি আরো বলেন, এখন থেকে তারা কুমারপুটি ১৯ নাম্বার ঘরে থাকবেন। বিদ্যুত ও পানিসহ সব ধরণের ব্যবস্থা এখানে আছে। তাদেরকে কৃষি বীজও দেওয়া হয়েছে। ঘরের আশেপাশে খালি জায়গায় সবজি আবাদ করবেন। এটিই হলো এই সরকারের সফলতা। আমরা চাই প্রত্যেকটি মানুষ এগিয়ে যাক, এটাই আমাদের লক্ষ্যে।

উল্লেখ্য, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্মশত বার্ষিকী (মুজিববর্ষ) উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ বাড়ি প্রদান করা হয়েছে। কয়েকটি ধাপে ফরিদপুরের সালথা উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে মোট ৬৩৩টি ঘর ভূমিহীনদের মাঝে হস্তান্তর করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন প্রকল্পে আরও অনেক ঘর উপজেলায় প্রদান করা হয়েছে।  

উল্লেখ্য, গত ৬ জানুয়ারি, ২০২৩ তারিখে দৈনিক নওরোজ, সংবাদ সারাবেলা, কিংস নিউজ২৪.কমসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় “সালথার ভূমিহীন নিঃসন্তান দম্পত্তির মাথা গোঁজার ঠাই নাই” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর উপজেলা প্রশাসন বিষয়টি সরেজমিনে যাচাই বাছাই পূর্বক গত মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিকালে জমিসহ আশ্রয়ন প্রকল্পের একটি ঘর প্রদান করেন।


ভিন্ন খবর এর আরও খবর: